Home / সংবাদ বাংলা / শীতে ত্বকের যত্নে মিষ্টিকুমড়া

শীতে ত্বকের যত্নে মিষ্টিকুমড়া

ঘরের দুয়ারে হাজির হয়েছে শীত। সাথে ত্বক তার আসল রূপ দেখাতে শুরু ক’রেছে। তবে খুব বেশি যে দেরি হয়েছে তা কিন্তু নয়। তাই এখনই নিয়মিত রূপচর্চা শুরু ক’রে দিন। আর এই রূপচর্চাতে মিষ্টিকুমড়া হয়ে উঠতে পারে আপনার একমাত্র সহযোগী।

শীতের শাকসবজির ভেতর অন্যতম হচ্ছে মিষ্টিকুমড়া। আর এই মিষ্টিকুমড়াই আপনার ত্বকের সৌন্দর্য ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করবে। স্বাদে, গুণে অনন্য হচ্ছে মিষ্টিকুমড়ো। পুষ্টিবিদদের কাছে সুপার ফুড হিসেবেও খেতাব জিতেছে এই সবজি। কিন্তু আপনি জানেন কি এই মিষ্টি কুমড়ো আপনার রূপের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে কতটা কার্যকর?

মিষ্টিকুমড়াতে রয়েছে ভিটামিন এ, সি, ই ও চার রকমের ভিটামিন বি (নায়াসিন, ফোলেট, রিবোফ্লাভিন, বি সিক্স)। আরও আছে আলফা ও বিটা ক্যারোটিন এবং জিঙ্ক, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়ামের মতো খনিজ উপাদান।

এটি সব ধরনের ত্বকের জন্যই উপযোগী। মিষ্টিকুমড়া ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃ’দ্ধি, ব্রণের সমস্যা প্রতিরোধ ও প্রতিকার করার পাশাপাশি সূর্যের আলো ও পরিবেশ দূষণের ফলে ত্বকের যে ক্ষ’তি হয়, তা সারিয়ে তুলতে পারে।

কিন্তু কথা হচ্ছে কিভাবে ব্যবহার করবেন মিষ্টি কুমড়া? যাদের শুষ্ক ত্বক, তাদের জন্য আর্দ্রতা ধরে রাখতে মিষ্টি কুমড়োর মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। দুই চামচ মিষ্টিকুমড়োর পাল্প, আধা চামচ মধু, এক চামচ দুধ, দুই চামচ নারকেল তেল, এক চিমটি দারুচিনিগুঁড়ো দিয়ে মিশ্রণটি তৈরি করুন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট মুখে লাগিয়ে উষ্ণ পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য এক টেবিল চামচ মিষ্টিকুমড়ার পাল্পে এক চামচ আপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। মিশ্রণটি ত্বকে মেখে ১০ থেকে ১৫ মিনিট অপেক্ষা ক’রে উষ্ণ পানিত ধুয়ে ফেলুন।

যাদের মুখে ব্রণর সমস্যা, তারা এক চামচ মিষ্টিকুমড়ার পাল্প, দুই চামচ টক দই, আধা চামচ ওটসের গুঁড়ো, আধা চামচ মধু আর এক চিমটি দারুচিনিগুঁড়ো নিয়ে মিশ্রণটি তৈরি করুন। ১০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রেখে উষ্ণ পানিতে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত দুই দিন ব্যবহার ক’র’লে ভালো ফল পাওয়া যাবে।

সূ’ত্র: জি নিউজ

Check Also

সর্বোচ্চ উপকার পেতে কিছু ‘ড্রাই ফ্রুটস’ পানিতে ভিজিয়ে রাখুন

বাদাম ও বীজ ধরনের খাবার স্বাস্থ্যকর। তবে কতটা খাওয়া উচিত তা নিয়ে আছে মত-পার্থক্য। বাদাম, …